টরকী বন্দরে চরেতে সন্ত্রাসী হামলা ভাঙচুর লুট

গৌরনদী উপজেলার টরকীরচরতে গত রোববার রাতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একদল কিশোর সন্ত্রাসী বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাটসহ তিনজনকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখমসহ ৫ জনকে আহত করেছে। দুইজনকে গৌরনদী উপজেলা ও একজনকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, স্থানীয় লোকজন, আহত ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গৌরনদী উপজেলার টরকীরচর চৌরাস্তা এলাকায় গত রোববার সন্ধ্যায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমিন পালোয়ান (২২),আবির হোসেন (২১)সহ ৫/৬ জন কিশোর বিভা রানীর ভাতিজা শুভ মন্ডলের সমর্থক জিতু মন্ডলকে (২২) মারধর করে আটকে রাখে। খবর পেয়ে নারী বিভা রানী মন্ডলের ভাতিজা শুভ মন্ডল (২৮) সহদর বাধন মন্ডল (১৯) ৫/৬ সমর্থককে নিয়ে পাল্টা হামলা চালিয়ে আমিন ও আবিরকে মারধর করে জিতুকে ছাড়িয়ে নিয়ে আসেন।
বিভা রানী মন্ডল (৬৫) অভিযোগ করে বলেন, পূর্ব শত্রতার জের ধরে রোববার রাত পোনে ৮টার দিকে টরকীর চর গ্রামের ফয়জুর রহমানের ছেলে আমিন পালোয়ানের (২২) নেতৃত্বে সহযোগী আবির (১৬), সফিকুল (১৭) হৃদয় (১৬)সহ ২০/২৫ জন কিশোর ধারাল অস্ত্র লাঠিসোটা, হকিষ্টিক নিয়ে বাড়িতে ঢুকে বসত ঘরের সামনে এসে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এসময় আমি দরজা খুলে ঘর থেকে বের হয়ে গালিগালাজ করতে নিষেধ করলে সন্ত্রাসীরা বসতঘর, আসবাবপত্র ভেঙ্গে ঘরের সামনে থাকা ইয়ামাহা মটরসাইকেল ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ সময় ভাতিজা বাধন মন্ডল ও তার মা মমতা রানী মন্ডলকে (৩৬) কুপিয়ে জখম করে।

তাদের রক্ষায় ভাই শুভ মন্ডল, বাবা উপেন মন্ডল ও আমি এগিয়ে গেলে আমাদেরকে পিটিয়ে আহত করেছে। আহত শুভ মন্ডল মা মমতারানী মন্ডলকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং অবস্থার অবনতি ঘটায় রাতেই বাধনকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মোঃ মাহাবুবুর রহমান জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। তবে এখনো কোন পক্ষই মামলা দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।